How to make YouTube Channel. ইউটিউব চ্যালেন কিভাবে খুলবেন

এই আর্টিকেলে শিখবেন কিভাবে ইউটিউব চ্যালেন খুলে ভিডিও প্রকাশ করা হয়, ইউটিউব চ্যালেন খোলার পদ্ধতি, ভিডিও তৈরী করে ইন্টারনেটে আয়  পদ্ধতিকরার নিয়মনীতি,গুগল থেকে ইনকাম করা যায় ইউটিউব থেকে, কিভাবে ইউটিউব থেকে আয় করা হয়, ভিডিও চ্যালেন তৈরী করে আয় করার

বর্তমান একটি ইউটিউব চ্যালেন একটি টিভি চ্যালেনের মতই ভুমিকা পালন করে। দিন দিন ইন্টানেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা জ্যামিতিক হারে বেরে যাওয়ায় এর জনপ্রিয়তা এখন আকাশ চুম্বী । বাংলাদেশে এখন নয় কোটি লোক ইন্টানের ব্যবহার করে।

এই বিশাল ইন্টানেট ইউজারের নিকট আপনার ব্যবসার/ পণ্যের প্রচার করতে একটি ইউটিউব চ্যালেন খুলতে পারেন।

 

এছাড়াও ভিডিও তৈরী করার অভিজ্ঞতা থাকলে সুন্দর সুন্দর ভিডিও দিয়ে ইউটিউব চ্যালেন চালিয়ে প্রচুর টাকা আয় করতে পারেন।

একটি ওয়েব সাইটের মতই চ্যালেন থেকেও প্রচুর আয় করার সুযুগ রয়েছে ইউটিউবে । অনেকে পেশাদার হিসাবে ইউটিউব চ্যালেন বানিয়ে মাসে বহু টাকা আয় করছেন।

আজকে আমরা দেখবো কিভাবে ইউটিউব চ্যালেন তৈরী করা হয়? তো চলুন শুরু করা যাক- ইউটিউব চ্যালেন খোলার জন্য প্রথমে একটি জিমেইল একাউন্ট খুলতে হবে।

যদি জিমেইল একাউন্ট খোলা না থাকে তাহলে একটি জিমেইল একাউন্ট খুলে নিন। কিভাবে জিমেইল একাউন্ট খুলতে হয় যদি না জানেন তাহলে এখানে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিন ।

 

আপনি আরও পড়তে পারেন-

কিভাবে জিমেইল একাউন্ট খুলবো? How to make Gmail?

কম্পিউটার বা ল্যাপটপ হ্যাক হওয়ার লক্ষণগুলো কি কি?

শিক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন হতে টাকা আয় করার সহজ পদ্ধতি

 

ইউটিউব চ্যালেন তৈরী করার নিয়মঃ

ইউটিউব চ্যালেন খুলতে একটি জিমেইল একাউন্ট প্রয়োজন পড়বে। ইউটিউব হলো গুগলের একটি প্রডাকস। তাই ইউটিউবে চ্যালেন তৈরী করতে গুগল একাউন্ট লাগবে। গুগল একাউন্ট না থাকলে এখানে ক্লিক একটি গুগল একাউন্ট খুলে নিন।

চ্যালেন খোলার জন্য প্রথমে www.youtube.com এ প্রবেশ করে গুগল একাউন্ট (gmail) দিয়ে লগইন করুন।তারপর সেটিং ক্লিক করুন। নিচের চিত্রটি লক্ষ করুন-

You Tube Channel Setting

Setting বাটন ক্লিক করতে নিচের মত দেখাবে। এখানে create a channel বাটন ক্লিক করুন।

Create You Tube Channel

গুগল একাউন্ট যে নাম দিয়ে খুলছেন সেই নাম দেখাবে। আপনি যদি এই নামেই ইউটিউব চ্যালেন খুলতে চান তাহলে Create বাটন ক্লিক করুন। আর যদি নতুন কোন ব্যান্ডিং নাম দিয়ে চ্যালেন খুলতে চান তাহলে নিচের চিত্রের ন্যায় মার্ক করা use a business or other name বাটনটি ক্লিক করুন।

You Tube Channel Create a business name

নিচের মত চিত্র প্রদর্শিত হবে। brand account name হিসাবে আপনি যে নামে চ্যালেন খুলতে চান সেই নাম লিখুন। create বাটন ক্লিক করুন।

You Tube Channel Brand Name

সহজেই আমরা একটি ইউটিউব চ্যালেন তৈরী করে ফেললাম। এখন চ্যালেনটিতে একটি ভিডিও আপলোড করবো। এজন্য নিচের চিত্রের ন্যায় upload video বাটন ক্লিক করবো।

YouTube Video Upload

নিচের মত আসলে সিলেক্ট ফাইল ক্লিক করে আপনার তৈরী করা ভিডিওটি সিলেক্ট করুন।

YouTube Video Select

ভিডিওটি ওপেন করলে আপলোড হওয়া শুরু করবে। নিচের চিত্রের মত আসলে ভিডিওটির জন্য টাইটেল এবং ডিস্ক্রিপশনের ঘরে ভিডিওটির বর্ণনা দিন। সুন্দর একটি Thumbnail যুক্ত করুন। Thumbnail হিসাবে একটি ছবিও আপলোড করতে পারেন।

YouTube Video Title & Description

Next বাটন ক্লিক করুন। এখানে আপনি তিনটি অপশন পবেন। Public, Unlisted & Private আপনার সুবিধা অনুযায়ী অপশন বাচাই করে Publish বাটন ক্লিক করুন।

YouTube Video Publish

ভিডিওটি সম্পন্ন আপলোড হওয়া পযর্ন্ত অপেক্ষা করুন। সবশেষে Finish বাটন ক্লিক করুন।

এতক্ষণে আমরা একটি ইউটিউব চ্যালেন খুলে ফেলেছি এবং চ্যালেনে একটি ভিডিও আপলোড করে প্রকাশ করলাম।

 

এখন আমাদের চ্যালেনটি সুন্দর গ্রাফিক্স দিয়ে প্রফাইল, ফিচার প্রয়োজনীয় মেনু সাজাতে হবে। কিভাকে ইউটিউব চ্যালেন এর প্রফাইল, ফিচারে গ্রাফিক্স সেট এবং মেনু তৈরী করতে হয় সেই বিষয়ে বিস্তারিত আর্টিকেল পরবর্তীতে প্রকাশ করা হবে ।

 

Youtube Channel থেকে আয় করা পদ্ধতিঃ

 

ইউটিউব চ্যালেন খুলেই আয় করতে পারবেন না । আয় করা জন্য চ্যালেনটি অনেক জনপ্রিয় করতে হবে সেজন্য আপনাকে অনেক প্ররিশ্রমী হতে হবে। নিয়মিত চ্যালেনে ইউনিক ভিডিও তৈরী করে আপলোড করতে হবে।

কোনভাবেই অন্য কারো ভিডিও কপি করে চ্যালেনে আপলোড দিবেন না। অন্যের ভিডিও কপি করে চ্যালেনে দিলে আপনার চ্যালেন ব্লক হয়ে যাবে। তাই ভুলেও এ কাজ করবেন না।

 

আপনি যদি নতুন চ্যালেন খুলে থাকেন তাহলে চ্যালেনে নিয়মিত ইউনিক ভিডিও আপলোড করতে থাকেন। আপনার চ্যালেনটি দিন দিন পপুলার হতে শুরু করবে।এতে আপনার ইউটিউব থেকে আয় করার পথ সহজ হবে।

 

ইউটিউব চ্যালেনে আয় করার সবচেয়ে জনপ্রিয় পদ্ধতি হচ্ছে চ্যালেনে এডসেন্স যুক্ত করা। আপনার চ্যালেনের সাব্সক্রাইব সংখ্যা যখন ১ হাজার এবং লাস্ট ১২ মাসে ভিডিও ওয়াচ টাইম ৪ হাজার ঘন্টা হবে তখন আপনি এডসেন্স যুক্ত করতে পারবেন।

 

কিভাবে চ্যালেনে এডসেন্স যুক্ত করতে হয় এবং ইউটিউব চ্যালেনে আরও কি কি পদ্ধতিতে আয় করা যায় সেই বিষয়ে বিস্তারিত আর্টিকেল পরবর্তীতে প্রকাশ করা হবে। আজকের তৈরীকৃত চ্যালেনে প্রতিটি আর্টিকেলের ভিডিও টিউটোরিয়াল প্রকাশ করা হবে।

এখানে ক্লিক করে চ্যালেনটি সাব্সক্রাইব করে সদস্য হতে পারেন। আর পরবর্তী আর্টিকেল দেখার জন্য নোটিফিকেশন পেতে চ্যালেনের বেল আইকনটি অন করে রাখুন।

 

প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা বুঝতে সমস্যা হলে নিচের ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন। এছাড়াও কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করে জানান । প্রতিউত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবো ইনশাল্লাহ।

 

 

আর্টিকেলটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন।

ধন্যবাদ-

অন্যান্য আর্টিকেল –

ইন্টারনেটের মাধ্যমে জমির মালিকানা যাচাই এবং জমির খতিয়ান/পর্চা বের করার নিয়ম পদ্ধতি

কোন সফ্টওয়ার ছাড়াই পেনড্রাইভ বুট করবেন যেভাবে

আপনার ফেসবুক আইডি কি নিরাপদ আছে?

মতিউর রহমান

শিক্ষার্থী, ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *