ফ্রিল্যান্সিং বনাম আউট সোসিং মুক্ত পেশার হালচাল-আর্নিং ট্রিকস

আউট সোর্সিং নিয়ে প্রতারনার বিষয়টা জানা প্রয়োজন। আমি বড় কোন প্রতারনার স্বীকার না হলেও ছোট খাট বেশ কিছু প্রতারনার স্বীকার হয়েছি। সবচেয়ে বড় ক্ষতিটা হচ্ছে জীবন থেকে মূল্যবান সময় অপচয় হওয়া। এ জন্য নতুনদের সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

 

বিদ্যুৎ বিল বিকাশ করা পদ্ধতি

ইউটিউবে উলঙ্গ হয়ে হস্তমৈথুন (Masturbation) গাইডলাইন

বিকাশ অ্যাপে ‘বার্ড গেম’ খেলে আইফোন পাবেন যেভাবে

 

চলমান সময়ে আউট সোর্সিং শব্দটি বেশ আলোচিত সমালোচিত হচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রে নিন্দিত হয়ে দাড়িয়েছে। অসাধু ব্যাবসায়ীরা চোখ ধাধানো বিজ্ঞাপন দিয়ে নিজদের স্বার্থ হাতিয়ে নিয়েছে আগে থেকেই। অনেকে আবার আউটসোর্সিংকে এমএল ব্যাবসার সাথে গুলিয়ে ফেলেছে। আমি প্রথম যখন ঘরে বসে হাজার হাজার ডলার ইনকামের বিজ্ঞাপন দেখি তখন মাথার মধ্যে নানা প্রশ্ন চেপে বসছিল। তখন নতুন হিসাবে কিছু প্রশ্ন অবাস্তব মনে হয়েছিল। নতুনদের কাছে প্রথমে অনেক সহজ মনে হয় তাই তারা তীব্র আখাঙ্খা অনুভব করে এবং সব কিছু ছাড়িয়ে এই কাজে জড়িয়ে পড়তে চায়।

ঘরে বসে হাজার হাজার ডলার ইনকামঃ

ঘরে বসে হাজার হাজার ডলার ইনকাম করুন আসলে বিষয়টা যদি এতই সোজা হইতো তাহলে মানুষ কষ্ট করে কুটি টাকার জন্য দিনরাত পরিশ্রম ছেড়ে দিয়ে ল্যাপটপ/ কম্পিউটার নিয়ে ঘরে বসে ইন্টারনেট সংযোগে উঠে পড়ে লাগত। কিন্তু তা করছে না কেন?

আউট সোর্সিং সম্পর্কে এমনটি হওয়ার কথা ছিল না কোনভাবেই। কিন্তু বাংলাদেশে এটা হয়েছে।

মূল বিষয়টার উপর কেউ লেখালেখি না করে নিজের স্বার্থটাকে সবাই প্রচার করছে। প্রচারের মূল বক্তব্যই হচ্ছে কিভাবে সহজেই ইন্টারনেটে হাজার ডলার ইনকাম করা যায়।

আউটসোর্সিং বেকার সমস্যার সমাধান করবে কিভাবে?

উপরোক্ত কারণে আউট সোর্সিং বেকার সমস্যার ইতিবাচক সুফল আনতে পারছে না। কেননা আউট সোর্সিংয়ের মূলমন্ত্র হচ্ছে কাজের দক্ষতা।

কাজের দক্ষতা না থাকলে এই পেশার প্রথম ধাপই পার হওয়া যায় না। আর কাজের দক্ষতা থাকিলে এখানে সঠিক মূল্য পাওয়া যায় ঠিক কিন্তু বিশেষ কথা হচ্ছে কাজের দক্ষতা থাকিলে যে কোন সেক্টরে সফলকাম হওয়া সময়ের ব্যাপার হয়ে দাড়ায়।

আপনার যদি অনলাইনে কাজের দক্ষতা থাকে তাহলে আউটসোর্সিং কেন অন্য যে কোন পেশায় সহজেই সফল হতে পারেন।

সুতরাং সফলকাম হওয়ার জন্য প্রথমেই কাজের দক্ষতা অর্জন করা আবশ্যক।

আউট সোসিং কি?

আউটসোর্সিং অর্থ বাহিরের উৎস অর্থাৎ নিজ প্রতিষ্ঠান বা কর্মস্থান ছাড়া অন্য কোন প্রতিষ্ঠান বা ব্যাক্তি দিয়ে কাজ করিয়ে নেওয়াকে আউটসোর্সিং বলে। যারা আউটসোর্সিং এ কাজ করেন তাদেরকে ফ্রিল্যান্সার বলা হয়।

ফ্রিল্যান্সার কি?

ফ্রিল্যান্সার হলো একটি স্বাধীন পেশা। কাজ করার সীমাহীন স্বাধীনতা এবং কাজের সঠিক মূল্য পাওয়া যায় এই পেশায়। এ জন্য কাজের দক্ষতা অর্জন করে সঠিক মার্কেটপ্লেসর আসতে হবে।

আউট সোসিং বনাব ফ্রিল্যান্সার কাজের ধরণঃ

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বা ব্যাক্তি সঠিক কাজ বাহিরের উৎস অর্থাৎ ফ্রিল্যান্সার দিয়ে করিয়ে নিতে চায় কেননা এখানে শুধু কাজের সঠিক মূল্য পরিশোধ করতে হয় বারতি কোন ব্যায় করা লাগে না

আউট সোসিং কাজগুলো কি?

আউটসোর্সিং সাইট বা অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে যে কাজগুলো করতে পারেন তা নিম্নরুপঃ-

*সফ্টওয়ার ডেভলপেমন্ট
*ওয়েব ডেভলপমেন্ট
*গ্রাফিক্স ডিজাইন
*নেটওয়ার্কিং ও তথ্য ব্যবস্থা
*ব্যাবসা সেবা (বিক্রয় ও বিপণন)
*প্রসশনিক সহায়তা
* মাল্টিমিডিয়া
*ডাটা ইন্ট্রি
* গ্রাহকসেবা
*অনুবাদ করা
* আর্টিকেল লেখা ইত্যাদি। এই প্রকারের কাজগুলো ইন্টারনেট ব্যাবস্থার মাধ্যমে করে দিতে পারলে আপনার পক্ষে অনলাইনে আয় করা সম্ভব।

এছাড়াও বিভিন্ন ধরণের উন্নতমানের কাজ রয়েছে এই বিশাল আউটসোর্সিং জগতে। মার্কেটপ্লেসগুলোতে (যেমন আপওয়ার্ক, ইল্যান্স) ঘুরে দেখুন।

আউটসোর্সিং প্রতারণাঃ

আমাদের দেশে কিছু অসাধু ব্যাবসায়ী সাধারণ মানুষকে ধোকা দিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত।

নানান পদ্ধতিতে অনলাইনে সহজেই আয় করার নামে সুক্ষভাবে ধোকা দিচ্ছেন সাধারণ জনগণকে। প্রকৃতপক্ষে উপরে উল্লেখিত কাজগুলোর কারিগরি দক্ষতা যদি আপনার থাকে তাহলেই কেবল আপনি আউটসোর্সিং এ ভালো আয় করতে পারেন। কাজের দক্ষতা ছাড়া এবং আউটসোর্সিং সম্পর্কে ভাল জানা না থাকলে ধোকা খাওয়া কোন উপায় নাই। তাই আগে কাজ করার জন্য নিজেকে তৈরী করুন তারপর এই পেশায় আসার চিন্তা ভাবনা করুন। কাজের দক্ষতা ছাড়া এক টাকাও ইনকাম করার কোন বৈধ পথ পাবেন না অনলাইনে।

আউট সোসিং কাজের একটা উদাহরণঃ

আমাদের কিছু ফ্রিল্যান্সার প্রয়োজন। যার লেখালেখির উপর পূর্নাঙ্গ দক্ষতা রয়েছে এবং পেশা হিসাবে ফ্রিল্যান্সারকে বেচে নিয়েছেন তারা আমাদের সাথে যোগাযোক করতে পারেন।

আলোচনা সাপেক্ষে উপযুক্ত মূল্য পরিশোধ করা হবে।

কাজের ধরণঃ
আমাদের সাইটের যে কোন বিভাগে ধারাবাহিক আর্টিকেল লিখতে হবে। এছাড়াও কেউ বিশেষ দক্ষতা পরিচয় দিয়ে আমাদের সাইটে নতুন বিভাগ খুলে আর্টিকেল লিখতে পারেন।

শর্তসমূহঃ
আর্টকেলে কোন প্রকার কপিরাইট গ্রহণ করা হবে না এবং আমাদের সাইটে প্রকাশিত আর্টিকেল অন্য কোথাও প্রকাশ করা যাবে না।

প্রতি সপ্তাহে কমপক্ষে দুটি আর্টিকেল জমা দিতে হবে। আর বিষয়ভিত্তিক হলে ০১ টি দিতে হবে।

আর্টিকেলে মিনিমাম ৫০০ শব্দ থাকতে হবে। শব্দের সংখ্যা ও গ্রাহক চাহিদার উপর ভিত্তি করে প্রতি আর্টিকেলে বোনাস দেওয়া হবে।

আপনার জন্য সুযোগঃ

আপনার যদি লেখালেখি করার দক্ষতা থাকে তাহলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করে বারতি আয়ের সুযোগ নিতে পারেন। ভাল রেজাল্ট দিতে পারলে স্থায়ীভাবে কাজের নিশ্চয়তা পাবেন।

এই ধরণের কর্ম যা আপনার স্বাবাবিক কাজের পাশাপাশি বারতি আয় করার সুযোগ করে দেয় তাই মূলত আউটসোর্সিং।

আউট সোসিং কেন করবেন এবং কিভাবে করবেন?

বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রায় দেশে হাজার হাজার ফ্রিল্যান্সার আছেন যারা অনলাইনে কাজ করেন কিন্তু তাদের সবাই শতভাগ সফল হতে পারেনি।

এখানে ব্যাক্তির মূল্যায়নের চেয়ে কাজের মূল্যায়ন অনেক বেশি। মনে রাখবেন অনলাইনে আয় করতে হলে ক্লাইনকে কোন না কোন সেবা প্রদান করেই আয় করতে হবে।

আপনার কাজের দক্ষতা আপনাকে উপরে উঠার রাস্তা তৈরী করে দিবে। যদি সেই কাজ সঠিকভাবে করতে না পারেন, কাজের প্রতি গভীর মনোযোগি না হন, সঠিক সময়ে কাজ করিয়ে না দেন তাহলে সেই মহূর্তে এখান থেকে ছিটকে পড়তে হবে।

সঠিক কাজ করে সঠিক মূল্য গ্রহণ করার স্বচ্ছতা যদি আপনার না থাকে তাহলে আপনার পক্ষে এই সেক্টরে কাজ করা সম্ভব না। আর যদি পজেটিভ করতে পারেন তাহলে ক্লাইনও খুশি হবে এবং ভবিষ্যতে কাজ করানোর জন্য আপনাকেই দিয়েই কাজ করাতে চাইবে।

যেহেতু আয় করার জন্যই আউটসোর্সিং করবেন তাহলে সঠিকভাবে কাজ শিখুন। নিজের দক্ষতাকে মূল্যায়ন করুন। উপযুক্ত দক্ষতা অর্জন করে এই জগতে প্রবেশ করুন।

আমাদের পরামর্শ

কাজের দক্ষতা অর্জন করার জন্য আপনার আগ্রহকে প্রাধান্য দিন। আপনার কাছে সবচেয়ে যে কাজ বেশি ভাল লাগে অর্থাৎ যে কাজ করতে বেশি আনন্দ পান সেই কাজের পূর্ণাঙ্গ দক্ষতা অর্জন করুন।

তাহলে সাফল্য আপনার কাছে এসে ধরা দিবে। আর যদি দক্ষতা অর্জন করতে না পারেন তাহলে সাফল্যের পিছনে ছুটতে ছুটতে জীবন শেষ করলেও সাফল্য পাবেন না।

 

 

আপনি আরো পরতে পারেন-

অনলাইন ইনকামের প্রফেশনাল মাধ্যম হচ্ছ ভিডিও (Video) তৈরি করে ইউটিউব চালানো

ইন্টারনেটের চমৎকার ইনকাম ব্লগিং করে আয় করা – অনলাইন ইনকাম

অনলাইন ইনকাম এবং প্রতারণা – online earning

হুদহুদ কম্পিউটার

হুদহুদ কম্পিউটার - মাওনা চৌরাস্তা, শ্রীপুর, গাজীপুর। যোগাযোগঃ Email- [email protected], Mobile-01632391209

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *