আলু ভর্তা কি? কিভাবে এটি তৈরি করা হয়?

বাংলাদেশের জনপ্রিয় একটি তরকারি হচ্ছে আলু ভর্তা। এটি সবচেয়ে বেশি খাওয়া হয় শীতকালে। গরম ভাতের সাথে এটি অত্যান্ত মজাদার একটি খাবার। আজকে আমরা আলু ভর্তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

 

আলু ভর্তা কি?

আলু ভর্তা হচ্ছে সিদ্ধ নরম আলু মরিচ (লংকা), পেঁয়াজ ও তেল মিশিয়ে পিষে তৈরিকৃত একধরনের খাদ্য। যা সাধারনত তরকারী হিসাবে খাওয়া হয়। বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্থানে এটির প্রচলন ব্যপক। বিশেষ করে ব্যাচেলর লাইফে কিংবা ম্যাচ জীবনে এটি নিত্য সঙ্গী। দরিদ্র পরিবার অনেক সময় তরকারির অভাবে এটি নিত্য খাদ্য হিসাবে গ্রহণ করে আর ধনাট্য পরিবার গুলো অনেক সময় এটিকে বিভিন্ন স্বাদে রুপান্তর করে খাদ্য তালিকায় স্থান দেয়। তবে সবার কাছে এটি একটি মাজাদার খাদ্য। ডাল আলুভর্তা সবাই খেতে পছন্দ করে।

 

আলু ভর্তার উপকরণ সমূহঃ

এটি তৈরি করতে আলু ছাড়াও যে উপকরণ প্রয়োজন তা হচ্ছে-

  • আলু
  • সরিষার তৈল / ঘি
  • পিয়াজ কুচি
  • মরিচ কুচি
  • লবণ

এছাড়াও বিভিন্ন স্বাদের জন্য বিভিন্ন উপাদান যোগ করা যেতে পারে।

 

প্রস্তুত প্রণালীঃ

আলু ভর্তা করার জন্য প্রথমে একটি আলাদা পাত্রে পরিমাণমত আলু সিদ্ধ করে আলাদা একটি বাটিতে সিদ্ধ আলুর খোসা ছাড়িয়ে রেখে দিতে হবে। তারপর পেঁয়াজ কুচি, মরিচ কুচি একটি ফ্রাই প্যানে হালকা তেলে একটু ভাজাভাজা করে নিতে হবে।

সিদ্ধ করা আলুগুলো হাতের সাহায্যে চাপ দিয়ে ভেঙ্গে পিষে নিয়ে তাতে ভাজা পেঁয়াজ ও মরিচকুচি এবং সরিষার তেল ভালভাবে মাখুন এবং সাথে পরিমাণ মত লবণ দিন। স্বাদের বৈচিত্র আনতে অনেকে আলুর সাথে সিদ্ধ ডিম, সীম, বেগুন ইত্যাদিও ব্যবহার করেন। গোল গোল গোল্লা করে গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন মজাদার আলু ভর্তা।

 

বিভিন্ন স্বাদে আলু ভর্তাঃ

আলু ভর্তার বিভিন্ন স্বাদ পেতে বিভিন্ন উপকরণ যোগ করতে হবে। যেমন- ডিম, ঘি, কালজিরা, ধনে পাতা, আচার ইত্যাদি।

 

ডিম আলু ভর্তাঃ

ডিম সিদ্ধ করে ভর্তার সাথে কাচা মরিচ কুচি সরিষার তেলে ভাল করে মেখে নিন। এটি খেতে ‍খুবই মজাদার। ডিম ভাজি করেও ভর্তা সাথে মিশিয়ে অন্যরকম স্বাদ পাওয়া যায়।

 

আচারি আলু ভর্তাঃ

আচারি আলু ভর্তা তৈরি করতে শুকনা মরিচ ও আচারের তেল ব্যবহার করুন। আচারি আলু ভর্তা মেয়েদের কাছে অনেক জনপ্রিয় ।

 

ঘি দিয়ে আলু ভর্তাঃ

ঘি দিয়ে আলুভর্তা তৈরি করতে শুকনা মরিচ ও অন্যান্য উপকরণ সহ আলু চটকে নিন। আলুর চটকে ঘি দিয়ে মেখে নিন। গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন।

 

কালজিরা –আলু ভর্তাঃ

কালজিরা আলু-ভর্তা বানাতে শুকনা মরিচ, ধনেপাতা কালজিরা উপকরণ যোগ করুন। ভর্তার উপকরণ সমূহ তেলে ভাজার সময় ধনেপাতা, শুকনা মরিচ ও কালজিরা হালকা করে ভেজে নিন। আলুর চটকে মেখে বানিয়ে ফেলুন কালজিরা-আলু ভর্তা।

 

শেষ কথাঃ

আপনার সবাই নিশ্চয় আলু ভর্তা করতে জানেন এবং পারেন তারপরও এই আর্টিকেলটি পড়েছেন। ভাল লাগলে শেয়ার করুন। আমাদের জানা মতে আলুভর্তা পছন্দ করে না এমন লোক নেই। জনপ্রিয় হওয়ায় আপনিও এটিকে পছন্দ করেন বিধায় এই লেখাটিতে মনোযোগ দিয়েছেন। এটি জনপ্রিয় হওয়ার কয়েকটি কারণ হতে পারে।যেমন- এটি রান্না করতে কোন ঝামেলা পোয়াতে হয় না, খুবই অল্প সময়ে এটি তৈরি করা যায়, গরম ভাতের সাথে খুবই মজাদার হয়ে উঠে।

 

বিঃদ্রঃ কিভাবে কি করবেন বিভাগের সকল আর্টিকেল পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

হুদহুদ কম্পিউটার

হুদহুদ কম্পিউটার - মাওনা চৌরাস্তা, শ্রীপুর, গাজীপুর। যোগাযোগঃ Email- info@hudhud-bd.com, Mobile-01632391209